টিভি উপস্থাপক ও অভিনেতা শাহরিয়ার নাজিম জয় তার সাক্ষাৎকারের অনুষ্ঠানে আজেবাজে প্রশ্ন করে আগে থেকেই অনেক বেশি সমালোচিত। এবার তিনি তার একান্ত সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে নিয়ে আসেন বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ভাইরাল হওয়া ১০ বছরের শিশু নাঈমকে।

সাক্ষাৎকারের সময় জয় নাঈমকে প্রশ্ন করে যে, সে তার পুরস্কারের টাকা দিয়ে কি করবে? তখন নাঈম তাকে বলে, সেই টাকা সে এতিমখানার অনাথ শিশুদের জন্য দান করে দিতে চায় কারণ খালেদা জিয়া এতিমের টাকা লুট করে খেয়েছে, কিন্তু পরবর্তীতে নাঈম স্বীকার করে যে এই কথাগুলো জয় তাকে শিখিয়ে দিয়েছে। এরপর শুরু হয় জয়কে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা।

এসবের পর জয় একটি লাইভ ভিডিওতে জানায় যে সে এই সব কোন কথাই নাঈমকে শেখাননি আর তিনি জানেন না যে কেন নাঈম এখন এই ধররেন কথা বলছে। এইসব কিছুর জন্য জয় এখন তোপের মুখে পরেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে আর সেই সাথে তিনি নানাভাবে জীবন নাশের হুমকিও পাচ্ছেন।

তার কথা অনুসারে নাঈম তার বক্তব্য নিজে থেকেই দিয়েছে আর সেখানে তার বাবা, মাও ছিলেন, তাহলে কেন এখন তাকে অপমান অপদস্থ করা হচ্ছে। তিনি বলেন যে তিনি একজন সাধারন মানুষ আর তিনি কটূক্তি করার অধিকার রাখেন না। তিনি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে জীবন ভিক্ষা চেয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ

জয়ের একান্ত সাক্ষাৎকারে নাঈমের বলা প্রতিটি কথা শেখানো

প্রধানমন্ত্রীর কাছে পূর্বাচলে একটি প্লট চেয়েছিলেন জয়