চুল আমাদের সবথেকে মূল্যবান একটা জিনিস। কারণ, চুল সৌন্দর্যের বহিঃপ্রকাশ। কিন্তু এই চুল যখন মানুষের পড়তে শুরু করে, তখন এটি পড়তেই থাকে। নানা কারণে আমাদের চুল পড়া শুরু হয়ে থাকে। দুশ্চিন্তা, পুষ্টির অভাব, ঘুম কম, শারীরিক ঘাটতি, খুশকি, কিংবা বংশগত কারণে আমাদের চুল পড়া শুরু হয়। জেনে নেওয়া যাক, কিভাবে আমারা আমাদের এই চুল পড়া সমস্যা দূর করতে পারি-

আজীবনের জন্যই চুল পড়া বন্ধ করার উপায়ঃ

বিজ্ঞানীরা অনেক গবেষণা করে আবিষ্কার করেছে যে, তেজপাতা ব্যবহারে চুল পড়া একদম কমে যাবে বা বন্ধ হয়ে যাবে। কারণ, এতে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান, যা মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়, মাথার ত্বক মজবুত করে, চুলের রুক্ষতা দূর করে, চুলের খুশকি দূর করে। এখন দেখে নেওয়া যাক, কিভাবে এই তেজপাতা ব্যবহার করে চুল পড়া বন্ধ করা যাবে।

তেজপাতা

তেজপাতা প্যাক তৈরী ও চুলে ব্যবহারের পদ্ধতিঃ

১. প্রথমে একটি ছোট বাটিতে ৫ থেকে ৬ টি পরিষ্কার ভাল করে ধোয়া তেজপাতা নিতে হবে।

২. এরপর তেজপাতা গুলো একটি প্যানে নিয়ে, এর সাথে কিছু পানি যোগ করে ১০ মিনিট ধরে চুলাতে তেজপাতা গুলো খুব ভাল করে ফুটিয়ে নিতে হবে। এরপর এগুলো ঠান্ডা করে নিতে হবে।

৩. এরপর একটি ছোট বাটিতে তেজপাতার পানিগুলো ছাকনা দিয়ে ছেঁকে নিতে হবে।

৪. এরপর এই পানিটি একটি স্প্রে এর বোতলে নিতে হবে এবং এটির সাথে তেজপাতার পানিটি চুলে ও চুলের গোরায় স্প্রে করতে হবে। তারপর চুলে খুব ভাল করে ৫ মিনিট হাত দিয়ে ম্যাসাজ করতে হবে।

স্প্রে বোতল

৫. এই মিশ্রণটি গোসলের ৪-৫ ঘন্টা আগে ব্যবহার করতে হবে এবং কোন প্রকার শ্যাম্পু ছাড়াই গোসল করতে হবে।

সপ্তাহে ৩ দিন এই মিশ্রণটি ব্যবহারে ২ সপ্তাহের ভিতরেই চুল পড়া কমে যাবে। নিচের ভিডিওটি থেকে দেখে নিন, কিভাবে এই মিশ্রণটি তৈরী করবেন এবং বন্ধুদের মাঝে এই পোস্টটি শেয়ার করুন-