এবার ছড়িয়েছে ‘রক্ত নেওয়ার’ গুজব

বেশ কয়েকদিন ধরেই চলছে ছেলেধরার গুজব, এতে গণপিটুনির শিকার হয়ে কিছুদিন আগে তসলিমা নামের এক নারী মারা যান। এছাড়াও গণপিটুনির শিকার হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন অনেকেই।

ছেলেধরার বিষয়ে যখন মানুষের গুঞ্জনের শেষ নেই ঠিক তখনই আবার নতুন গুজবের আবির্ভাব হয়েছে। এই নতুন গুজব হচ্ছে ‘রক্ত নেওয়ার’ গুজব।

রাঙামাটি সদরে রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে ‘রক্ত নেওয়া’র এই গুজব ছড়িয়ে পড়ে। সেই সময় সেখানে অনেক অভিভাবকেরা বিদ্যালয়ে ছুটে আসে।পরে প্রধান শিক্ষক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অভিভাবকদের শান্ত করে ও এই বিষয়টিকে গুজব বলে ঘোষণা করেন।

কয়েকজন অভিভাবক বলেন, তার এই গুজবটি শুনে তাড়াতাড়ি করে তাদের বাচ্চাদের কাছে ছুটে আসেন। হঠাৎ করেই তাদের এলাকার স্কুলে কারা এসে যেন রক্ত চাইছে এই গুজবটি ছড়িয়ে পরলে তারা আতঙ্কিত হয়ে পরেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণতোষ মল্লিক বলেন যে এই বিষয়টি সম্পূর্ণ রুপে গুজব ও রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে এই গুজবের কথাটি সবাই কে জানিয়েছেন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।