কি কি খাবার খেয়ে চিকন থেকে খুব তাড়াতাড়ি মোটা হওয়া যায়

চিকন ও রোগাপাতলা শরীর কেউই চায় না। সবাই চায়, নিজেকে স্বাস্থ্যবান রাখতে। কারণ, বেশী মোটা হলেও অনেক সমস্যা। তাই যারা চিকন তারা চান যেন তারা একটা স্বাভাবিক ওজনের মানুষ হতে। লিকলিকে চিকন মানুষ দেখতে খুবই দৃষ্টিকটু হয়। সাধারণত শরীরে খাবারের অনেক ঘাটতি দেখা দিলে মানুষের ওজন ঠিকমত না বাড়ার ফলে মানুষ চিকন হয়ে যায়। আবার দুর্বল পাচন শক্তির ফলে খাবারের সঠিক হজমের অভাবেও মানুষের শরীরের ওজন ঠিকমত বাড়ে না। দেখে নেই কি কি খাবার খেয়ে ওজন বাড়ানো সম্ভব-

দুধ ও সাবু দানার সাহায্যেঃ

সাবু দানার পায়েস

১/২ কাপ দুধ, ১ কাপ সাবু দানা , কিছুক্ষণ রেখে ফুলিয়ে নিতে হবে। এবার প্যানে এই মিশ্রণটি নিয়ে এর মধ্যে স্বাদ অনুযায়ী চিনি নিয়ে ফুটিয়ে ক্ষীর বানাতে হবে।
প্রতিদিন এটি খেতে হবে। এর মধ্যে প্রচুর পরমাণ কার্বোহাইড্রেড ও প্রোটিন থাকায় এটা ওজন বাড়ায়। আপনি এর সাথে ৩-৪ টি সেদ্ধ আলুও খান। এর ফলে খুব তাড়াতাড়ি আপনার ওজন বাড়া শুরু করবে।

কাঁচা ছোলা, সয়াবিন ডাল ও দুধ এর সাহায্যেঃ

সয়াবিন ডাল

আরও ৩ টি খাবার আছে যা ওজন বাড়ায়। আর তা হল কাঁচা ছোলা, সয়াবিন ডাল ও দুধ।
ভেজানো কাচা ছোলাতে আছে আয়রন, আর এগুলো ফাইবার জাতীয় প্রোটিন খাবার। প্রতিদিন নিয়মকরে কাঁচা ছোলা খেলে ওজন খুব দ্রুত বাড়ে।
সয়াবিন ডালেও প্রচুর প্রোটিন আছে। এটা নিয়মিত খেলে ওজন দ্রুত গতিতে বাড়ে।
দুধে আছে ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ও প্রোটিন এই ৩ টি উপাদান যা ওজন বাড়াতে খুব কার্যকর।

৫০ গ্রাম কাঁচা ছোলা, ৫০ গ্রাম সয়াবিন ডাল পানিয়ে ভিজিয়ে রেখে পরের দিন দুধের সাথে চিবিয়ে চিবিয়ে খেতে হবে। এভাবে খেতে থাকলে ১ মাসের ভেতরেই ওজনের অনেক পরিবর্তন হয়ে যাবে। ওজন অনেক বেড়ে যাবে।

আবার দুর্বল পাচন শক্তির ফলে খাবারের সঠিক হজমের অভাবেও মানুষের শরীরের ওজন ঠিকমত বাড়ে না। তাই দুর্বল পাচন শক্তি সবল করতে ১ গ্লাস দুধে ১/২ চা চামচ এলাচ গুড়া মিশিয়ে খেতে হবে রাতে শোবার আগে খেতে হবে। তাহলে পাচন শক্তি বেড়ে যাবে ও খাবার সহজেই শরীরে লাগবে।