ডেঙ্গু রোগীদের সাথে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ফটোসেশন!

ডেঙ্গু জ্বরের পরিস্থিতি যখন ভয়াবহ ঠিক তখন নিজের জরুরী কাজে ২৭ জুলাই স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মালয়েশিয়া গেছেন। এই খবর জনসম্মুখে আসার পর থেকে চলতে থাকে নানা ধরনের সমালোচনা। এই সব ধরনের সমালোচনার মুখে গতকাল রাত ১টার দিকে দেশে ফেরেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

আজ সকালে (১ আগস্ট) মিটফোর্ড হাসপাতালে তিনি ডেঙ্গু রোগীদের জন্য ১০০ শয্যার একটি নতুন ওয়ার্ড উদ্বোধন করে সেখানে চিকিৎসারত ডেঙ্গু রোগীদের খোঁজখবর নিতে উপস্থিত হন তিনি। সেই সময় তার সঙ্গে ছিলেন ডজন খানেক চিকিৎসকঁ, নার্স ও সংবাদকর্মী।

চিকিৎসারত ডেঙ্গু রোগীদের খোঁজখবর নিতে তিনি যান মহিলা ওয়ার্ডে। সেখানে তিনি রোগীদের মশারি তুলে তাদের শারীরিক অবস্থার খবর নেন। তিনি যখন খোঁজখবর নিতে ব্যাস্ত তখন বাকি সবাই ব্যাস্ত রোগীদের সাথে তার ছবি তুলতে।এতে রোগী ও তার স্বজনরা কিছু না বললেও তাদের চেহারায় বিরক্তির ছাপ লক্ষ্য করা যায়।

১০০ শয্যার চারটি ডেঙ্গু ওয়ার্ড উদ্বোধন করতে আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্যার সলিমুল্ল্যাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড) হাসপাতালে উপস্থিত হন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক। তিনি ওয়ার্ডগুলোতে গেলে তার সঙ্গে থাকা নেতাকর্মী ও নার্সরা মন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে, ‘মন্ত্রী মহোদয়ের আগমন, শুভেচ্ছা স্বাগতম’ বলে স্লেগান দিতে থাকেন। 

ওয়ার্ডে মন্ত্রী  কোনো রোগীর বেডের সামনে গেলেই মন্ত্রীকে রোগী দেখার জন্য নার্সরা দুটি বেডের মশারি চারদিক থেকে তুলে ফেলেন, এতে অনেক ঘুমন্ত রোগী জেগে উঠে, একসঙ্গে এত মানুষ ও ছবি তোলা দেখে রোগীর স্বজনদের চেহারায় বিরক্তির ভাব ফুটে ওঠে।

মন্ত্রী এক যুবক রোগীকে দেখে বলেন, ইয়াং ম্যান, তোমার আবার ডেঙ্গু হলো কীভাবে?’ আরেক বয়স্ক রোগীকে দেখে তিনি বলেন, ‘কী খবর, ব্যথা কমছে? কোনো সমস্যা নেই। চিকিৎসা নিয়ে কোনো চিন্তা করবেন না।’

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।