দীর্ঘজীবী হতে চাইলে আপেল নয়, রোজ খান চুমু!

এত দিন হয়তো শুনে এসেছেন যে, প্রতিদিন যদি একটা করে আপেল খেতে পারেন তাহলে ডাক্তার থেকে আপনি দূরে থাকবেন। কিন্তু বর্তমানে বিজ্ঞানীরা দীর্ঘজীবী হতে আপেল নয় চুমু খেতে পরামর্শ দিচ্ছেন। আপনার কাছে যদিও বিষয়টি ভুল বা হাস্যকর মনে হতে পারে কিন্তু সত্যিকার অর্থে প্রতিদিন প্রিয়জনকে একটা চুমু খান, তাহলেই আপনি দীর্ঘজীবী হতে পারবেন।
এই চুমু খাওয়ার অনেক উপকার রয়েছে। যেমন…

১। আপনার যদি অ্যালার্জি থেকে থাকে তাহলে চুমু খান কারন চুমু খেলে রক্তে প্রতিরোধক অ্য়ান্টিবডি তৈরি হয় যার ফলে অ্যালার্জির প্রভাব কমে এসে আপনার চোখ দিয়ে ও নাক দিয়ে জল পড়া এবং হাঁচি বন্ধ হয়।
২। চুমু খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে, যাবতীয় স্ট্রেস থেকে দূরে কারন চুমু খাওয়ার সময় আমাদের দেহ থেকে অক্সিটোসিন হরমোনের ক্ষরণ হয় যা আমাদের মনকে রিল্যাক্সড করে। এছারাও চুমু মাথাব্যথা কমায় ও হার্টরেট ঠিক থাকে।
৩। চুমু খেলে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। চুমু খেলে আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধক অ্যান্টিবডি তৈরি যা রোগ বালাই দূরে রাখে ও দাঁতের ক্যাভিটির সমস্যাও দূর করে।
৪। নিয়মিত চুমু খেলে ওজন নিয়ন্ত্রনে থাকে কারন শুধুমাত্র একটা চুমুতেই ১২০ কিলো ক্যালোরি বার্ন করা যায়। এছারাও ত্বকে বয়সের ছাপ ও বলিরেখাও কম পরে।


সুতরাং দীর্ঘজীবী হতে চাইলে আপেল নয়, রোজ খান চুমু আর পোস্টটি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন-

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।