পুরুষত্ব নষ্ট হতে পারে যেসব অভ্যাসে!

সুস্থ্য থাকার জন্য আমাদের সবার প্রয়োজন স্বাস্থ্যকর পদ্ধতিতে জীবনযাপন করা। আমাদের মধ্যে বেশির ভাগ মানুষ এই স্বাস্থ্যকর পদ্ধতি মানে জীবনযাপন করার বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে নেন না ফলে তারা নানা ধরনের সমস্যায় ভুগতে থাকেন। এছারাও রয়েছে আমাদের নানা ধরনের বাজে অভ্যাস যার ফলেও আমরা নানা ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভুগতে থাকি।

ঠিক এমনি ভাবে পুরুষদের নানা ধরনের বাজে অভ্যাসের ফলে তাদের পুরুষত্ব নষ্ট হতে পারে যা তারা অনেকেই জানেন না। তাদের এই অভ্যাস গুলি দীর্ঘদিন ধরে থাকার ফলে তাদের এই সমস্যার সৃষ্টি হয়।

ধূমপান করা:

এই অভ্যাস গুলোর মধ্যে সবার প্রথমে যা রয়েছে তা হল ধূমপান করা। বেশির ভাগ ছেলে এই ধূমপান করাকে ফ্যাশান হিসাবে বা অন্যরা করে তাই শুরু করে কিন্তু পরে তা তাদের অভ্যাসে পরিনত হয়। এই অভ্যাস থেকে তারা মারাক্তক ক্ষতির শিকার হয়। ব্রিটিশ জার্নাল অফ ইউরোলজি’তে এই ধূমপান করায় ছেলেদের পুরুষত্ব কমে আসার বিষয়ে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন করা হয়।

আলসেমি করা:

বিভিন্ন গবেষণা অনুসারে, যারা নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম করেন তাদের শারীরিক স্বাস্থ্য, যারা নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম করেন না তাদের থেকে অনেক ভাল। নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম না করার ফলেও অনেক সময় পুরুষত্ব নষ্ট হতে পারে।

অপরিচ্ছন্ন দাঁত:

দাঁত অপরিচ্ছন্ন থাকলেও পুরুষত্ব নষ্ট হতে পারে কারণ দাঁত অপরিচ্ছন্ন থাকার ফলে মুখে নানা ধরনের ব্যাকটেরিয়া তৈরি হয় যা পুরো শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। অনেক সময় এই ব্যাকটেরিয়া পুরুষাঙ্গের ধমনির উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে।

অপর্যাপ্ত ঘুম:

মানুষের শরীরের কোন জিনসই ঠিকমত কাজ করবেনা, যদি পর্যাপ্ত পরিমান ঘুম না হয়। শরীরে ঘুমের অনেক ঘাটতি দেখা দিলে, শরীর থেকে টেস্টোস্টোরেন হরমোন এর মাত্রা কমে যায়। যেটা কারণে মানুষের পুরুষ্যত্ব নষ্ট হয়। কারণ, এই হরমোন কমে গেলে শরীর থেকে পেশী ও হাড়ের ঘনত্ব কমে যায়। যার ফলে মানুষের পুরুষাঙ্গের শক্তি অনেক কমে যায়।

অতিরিক্ত টেলিভিশন দেখা:

ব্রিটিশ জার্নাল অফ স্পোর্টস মেডিসিন’য়ে প্রকাশিত হার্ভার্ড স্কুল অফ পাবলিক হেলথ’য়ের করা একটি গবেষণায় দেখা দেখা গেছে, যারা অতিরিক্ত টেলিভিশন দেখে, বিশেষ করে সপ্তাহে যারা ২০-২৫ ঘন্টা বা তার বেশি টেলিভিশন দেখে, তাদের শুক্রাণুর মাত্রা ৪৪% পর্যন্ত কমে যায়।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।