ব্রণ প্রতিটি মানুষের একটি সাধারণ সমস্যা। অপরিষ্কার থাকা, খাবার ও ঘুমের অনিয়ম, বংশগত কারণ, মুখে মেকাপ করা কিংবা বয়সজনিত হরমোনের কারণে আমাদের মুখে ব্রণ হয়। ব্রণ হলে আমাদের দেখতে খুব বিশ্রী দেখায় এবং এর সাথে দাগগুলো দেখতে খুব বাজে দেখায়। আমারা অনেক সময় ডাক্তারের কাছে যেয়েও এই ব্রণ ভাল করতে পারিনা। এখন দেখে নিন, কিভাবে সহজ উপায়ে এই ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর করা যায়। এছাড়া এটি ব্যবহার করে ত্বকের অন্যান্য দাগছোপ, চোখের নিচের কালো দাগ, বয়সজনিত দাগও দূর করা সম্ভব।

ব্রণ ও ব্রণের কালো দাগসহ সকল দাগ দূর করার উপায়ঃ

উপাদানঃ যেকোন ব্রান্ডের টুথপেস্ট, লেবু, টমেটোর রস, গোলাপ জল


১. ত্বকের ব্রণ দূর করার জন্য প্রথমে একটি সাদা যেকোন ব্রান্ডের টুথপেস্ট নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন এই পেস্টে ফ্লোরাইডের মাত্রা কম থাকে। এরপর একটি কটন বারে সামান্য টুথপেস্ট লাগিয়ে ব্রণযুক্ত জায়গায় লাগাতে হবে। ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে। পরেরদিন দেখা যাবে, ঐ ব্রণ গুলি শুকিয়ে গেছে।

২. ব্রণের দাগসহ যেকোন দাগ দূর করার জন্য ১ চামচ টুথপেস্টের সাথে ২-৩ ফোটা লেবুর রস মিশিয়ে ভাল করে প্যাক তৈরী করে দাগযুক্ত স্থানে লাগাতে হবে। এরপর যখন শুকিয়ে যাবে, তখন পানি দিয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এটা সপ্তাহে ২ বার করে করুলে ২-৩ সপ্তাহের ভিতর দাগ দূর হয়ে যাবে।

৩. এরপর আপনি ফর্সা ত্বক পেতে ১ চামচ টুথপেস্টের সাথে ১ চামচ টিমেটোর রস মিক্স করে মিশ্রণটিকে মুখে বা অন্যকোন ত্বকে ভাল করে লাগিয়ে ৩০ মিনিট ধুয়ে ফেললে, আপনার ত্বকের রোদের পোড়া কালচে দাগ দূর হয়ে ত্বক অনেক ফর্সা হয়ে যাবে। এভাবে কিছুদিন ব্যবহার করতে হবে।

৪. নাকের উপরের ব্লাকহেডস দূর করতে একটি বাটিতে ১ চামচ টুথপেস্ট, ১ চামচ লবণ, ১ আধা চামচ গোলাপজল নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে নাকের না অন্য জায়গার ব্লাক হেডসে ২-৩ মিনিট ধরে ভাল করে ম্যসাজ করতে হবে। ১০ মিনিট পর ভাল করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে ত্বকের ব্লাক হেডস সব ভাল হয়ে যাবে।

আরও ভাল করে বুঝতে নিচের ভিডিওটি দেখুন ও পোস্টটি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন-