যে ৪ টি কৌশলে মেয়েরা ছেলেদের ফাঁদে ফেলে!

নারী মানের ছলনাময়ী। এটা যেমন অনেকেই মনে করেন, তেমনি এটা কবিরাও মেনে বিভিন্ন কবিতা রচনা করেন।পুরুষদের নারীদের জালে আকৃষ্ট করা, নারীদের কাছে তেমন কোন ব্যাপারই না। এটা কি আসলেই সত্যি, নাকি সত্যি না? তবে এটা অনেকেই বিশ্বাস করে যে, নারীরা তাদের ছলনায় ছেলেদের ফাঁদে ফেলে। কি সেই কৌশল, যার মাধ্যমে একটি মেয়ে যেকোন ছেলেকে তার ফাঁদে ফেলতে পারে, দেখুন–

সৌন্দর্য দিয়েঃ

সুন্দরী নারীদের ছেলেদের ফাঁদে ফেলার প্রধান অস্ত্র হল তাদের সৌন্দর্য। একটি সুন্দরী নারীর রুপ তাদের এতটাই ধারালো অস্ত্র যে, এটার মাধ্যমে তারা যেকোন ছেলের মন ভুলিয়ে দিতে পারে। একজন সুন্দরী নারীর আবেদন অগ্রাহ্য করা, একজন ছেলের পক্ষে বেশিরভাগ সময়ই উপেক্ষা করা সম্ভব হয় না। তাই একজন ছেলে খুব সহজেই তখন ঐ সুন্দরী নারীর সৌন্দর্যের ফাঁদে সহজেই ধরা দেয়।

ইমোশনাল অত্যাচারঃ

মেয়েরা ছেলের ফাঁদে ফেলার অন্যতম প্রধান অস্ত্র হল ইমোশনাল ব্লাকমেইলিং। একটি এমন ভাবে একটি ছেলেকে ইমোশনাল করে ফাঁদে ফেলতে পারে যে, তখন ঐ ছেলেটি ভালমন্দ বিচার করার ক্ষমতাই হারিয়ে ফেলে। ছেলেটি তখন ঐ মেয়ের জন্য সব কিছুই করতে চায়। তখন ঐ ছেলেটাই নিজেকে দোষী ভাবা শুরু করে এবং সেই দোষ থেকে মুখি পেতে মেয়েটি যা বলে, তাই করে। এই ভাবে একটি মেয়ে তার ইমোশনাল অত্যাচারের ক্ষমতা দিতে সহজেই একটি ছেলেকে তার ফাঁদে ফেলতে পারে।

চোখের জল দিয়েঃ

মেয়েদের চোখের জলকে অধিকাংশ পুরুষই অবহেলা করতে পারেনা। একটি মেয়ে তার চোখের জলের নাটক করে, একটি পুরুষকে সহজেই ফাঁদে ফেলতে পারে, আর এর জন্য তার এক ফোঁটা চোখের জলই যথেষ্ট। এটা একটি নারীর জন্য খুবই সহজ একটি প্রক্রিয়া। আর এর সাহায্যে একটি মেয়ে একটি ছেলেকে সহজেই পটিয়ে ফেলতে পারে। এই চোখের জলের সাহায্যে একজন নারী একজন পুরুষকে গাধা বানিয়ে রাখতে পারে ও তার কাছ থেকে সকল ফায়দা আদায় করতে পারে।

রেঁধেছি যতনেঃ

একটি মেয়ে একটি ছেলেকে তার সুস্বাদু রান্নাকরা খাবার খাইয়ে সহজেই পটিয়ে থাকে। কারণ পুরুষের মন জয় করার সবচেয়ে সহজ উপায় হল, তাকে সুস্বাদু রান্নাকরা খাবার খাওয়ানো। আর এটা যখন কোন মেয়ে কোন ছেলেকে ফাঁদে ফেলার জন্য করে, তখন কোন ছেলেই এর থেকে রেহায় পায় না। প্রায় সকল পুরুষই এই ফাঁদে তখন পা দেয়।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।