শরীরের বিশেষ কিছু অঙ্গ স্পর্শ না করাই ভালো!

আমরা সাড়াদিন শরীরের কোননা কোন অঙ্গ সাড়াদিন স্পর্শ করে থাকি। কিন্তু আমরা এটা জানিনা যে, এভাবে না জেনে হুটহাট যেকোন অঙ্গ স্পর্শ করা ঠিক না। কারণ আমাদের শরীরের বিশেষ কিছু অঙ্গ রয়েছে, যা স্পর্শ করলে আমাদের অনেক ক্ষতি হতে পারে। চিকিৎসকেরা বিভিন্ন গবেষণা করে দেখেছেন যে, আমরা যদি সুস্থ ও স্বাভাবিক থাকতে চাই, তবে এই অঙ্গগুলি স্পর্শ না করাই বুদ্ধিমানের কাজ। এখন দেখে নেই কোন অঙ্গগুলি স্পর্শ করলে আমাদের ক্ষতি হতে পারেঃ

মুখের ত্বকঃ

ঘন ঘন মুখে বা গালে হাত দেওয়াটা একটা বদ অভ্যাস। আমাদের ত্বক পরিষ্কার করতে আমারা পানি দিয়ে হাতের সাহায্যে মুখ ধৌত করতেই পারি। সেটা আলাদা বিষয়। কিন্তু অনেকেই আছে, অযথায় মুখে হাত দিয়ে ডলাডলি করে। আমরা সাড়াদিন দৈনন্দিন কাজ করার ফলে আমাদের হাতে অনেক জীবাণু লেগে থাকে। আর আমাদের আঙ্গুলের ডগা অনেক তৈলাক্ত থাকে। যখন আমরা মুখে হাত দেই, তখন সেটি আমাদের মুখের ত্বকের নিঃসৃত তেলের সাথে ও আঙ্গুলের তেলের সাথে মিশয়ে জীবাণু তৈরী করে। যার ফলে ব্রণ, ফুসকুরি সহ নানা রকম ত্বকের সমস্যার সৃষ্টি হয়। অনেকের মুখে ব্রণ হলে, তা তারা অনবরত আঙ্গুলের নখের মাধ্যমে খোটলাতে থাকে। যার ফলে তাদের সেই জায়গার ব্রণ আরো বেড়ে যায় ও সেখানে কালো দাগের সৃষ্টি হয়। যা পরে আর ভাল করা সম্ভব হয় না। তাই আমাদের মুখের ত্বকে হাত না দেওয়াই ভাল।

কানের ছিদ্রঃ

আমারা অনেকেই কান চুলকালে কানের ভিতর যে কোন কিছু প্রবেশ করিয়ে চুলকাতে থাকি। আবার অনেক কান পরিষ্কার করতে কলম, পেন্সিল, কাগজ বিভিন্ন কিছু কানের মধ্যে প্রবেশ করিয়ে নাড়াতে থাকি। এটা খুবই ভয়ানক একটি অভ্যাস। কারণ আমাদের কানের ভিতরের পর্দা খুবই পাতলা হয়। তাই কান চুলকালে তা সহ্য করে চুপচাপ বসে থাকতে হবে। আর কান পরিষ্কার করতে ডাক্তারের কাছে যাওয়াটাই সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

ঠোঁট ও মুখের ভিতরের অংশঃ

ঠোঁট ও মুখে হাত দেওয়াটা খুবই বাজে স্বভাব। কারণ, ডাক্তারেরা বলেন আমাদের শরীর যে সকল জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হয়, তার ৩ ভাগের এক ভাগই হাত ও মুখের মাধ্যমে প্রবেশ করে। তাও মুখের ভেতর না স্পর্শ করার ভাল।

চোখঃ

মানুষের শরীরে চোখ খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও সংবেদনশীল জায়গা। আমরা অনেকেই চোখ চুলকাতে হাতের আঙ্গুল দিয়ে ডলা দেই, যা মোটেও ঠিক না। কারণ এই আঙ্গুলের মাধ্যেমে চোখে জীবাণু গেলে চোখের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। তাই চোখ পরিষ্কার করতে ও চুলকালে চোখে পানি ঝাপটা দিতে হবে। সরাসরি চোখে হাত না দেওয়াটাই ভাল।

নাকের ভিতরেঃ

আমাদের মধ্যে অনেকের বদঅভ্যাস হল নাকের ফুটোর ভিতর আঙ্গুল দেওয়া। অনেকে স্বর্দি লাগলে আবার অনেকে কোন কারণ ছাড়াই নাকের ফুটোর ভিতরে আঙ্গুল দিয়ে থাকে। যা দেখতে যেমন কুরুচিপূর্ণ, তেমনি স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, স্টাফাইলোকোকাস অরিয়াস নামক এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া দ্বারা যারা আক্রান্ত হয়, এদের মধ্যে ৫১% শতাংশই নাকের ভিতরে হাত দেওয়ার অভ্যাসগ্রস্থ।

নখের ভিতরের অংশঃ

অনেকেই আছে যারা অনবরত দাঁত দিয়ে নখ কাটে। এমনকি তারা মুখ দিয়ে নখ পরিষ্কার করে। এতে করে নখের ভিতরের জীবাণু ও মৃতকোষগুলি শরীরে ভিতর প্রবেশ করে, নানা রোগের সৃষ্টি করে। তাই এই বদঅভ্যাস আমাদের ত্যাগ করা উচিত। তাই নখ পরিষ্কার করতে নেইল কাটার ও ব্রাশ ব্যবহার করুন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।