স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় হিজড়া নিয়োগ!

গৃহকর্মী হিসেবে এক হিজড়াকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সরকারি বাসায়।তার নাম রিয়াদি শামস, সরকার যখন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের অধিকার নিশ্চিত করতে কাজ করছে সেই সময়ে তাকে নিয়োগ দেয়া হলো মন্ত্রীর বাসায়।

৭ আগস্ট জার্মান ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলেতে এই হিজড়া কে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এই প্রতিবেদনে বলা হয় যে চার বছর আগে রিয়াদি কে ত্যাগ করে পরিবার কিন্তু সে দমে যায় নি। অ্যাকাউন্টিং বিভাগ থেকে পড়াশুনা শেষ করে গেল চার মাস ধরেই চাকরি খুঁজছিল সে ও এই মাসে সে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সরকারি বাসায় গৃহকর্মী হিসাবে কাজ পায়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় গৃহকর্মী হিসাবে কাজ করার বিষয়ে রিয়াদি বলেন যে, এখানে কাজ শুরু করার সময় সে ভেবেছিল যে সমাজের অন্যান্য জায়গার মতো এখানেও তাকে বিরূপ আচরণের শিকার হতে হবে কিন্তু এখানে সে এই রকম কোন আচরণ পাইনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় গৃহকর্মী হিসাবে কাজ করে সে অনেক সন্তুষ্ট, অল্প কিছুদিনের মধ্যেই রিয়াদির সঙ্গে ওই বাসার অন্যান্য গৃহকর্মীর সুসম্পর্ক গড়ে উঠেছে। মন্ত্রীর বাসায় কর্মরত রেফাত নামের এক পুলিশ সদস্য বলেন যে, রিয়াদির ব্যবহার অনেক ভালো, সে আমাদের সঙ্গে খুব মিলেমিশে থাকে, এছারাও পড়াশুনার ক্ষেত্রে অন্যদের সহায়তা করে রিয়াদি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিজরাদের বিষয়ে বলেন যে, “এরা পিতার সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হয় না, ভোটাধিকার পায় না, ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারে না। সেজন্য আমরা মনে করি তাদের এভাবে চলতে দেয়া যেতে পারে না। সেটা প্রধানমন্ত্রী বুঝেছেন এবং খুব শিগগিরই যাতে তাদের সেই দু:খ অবসান হয় সেজন্য পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।”

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।